কলকাতা অফিস
আপডেট
১৭-০৫-২০১৮, ২০:২৯
পশ্চিমবঙ্গ

সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশিরা অশান্তি করেছে- দাবি মমতার

m-
ভোটের অশান্তি করতে বাংলাদেশ থেকে লোক আনতে সাহায্য করেছিল ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী। উত্তর চব্বিশ পরগনা, বনগাঁ, বাগদা ও বসিরহাট বাংলাদেশ সীমান্ত। বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, অশান্তি বাধাতে কেন্দ্রের বাহিনী বিএসএফ কাজ করেছে। একইভাবে তিনি এও বলেন, শুধু বাংলাদেশ থেকে নয় পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী বিহার ও ঝাড়খণ্ড থেকেও ভোটে অশান্তির জন্য লোক এসেছিল।

বৃহস্পতিবার রাতে মুখ্যমন্ত্রীর কর্মস্থল নবান্ন থেকে বাড়ির পথে যাওয়ার সময় উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে বলতে গিয়ে এই কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূলের সভানেত্রী মমতা ব্যানার্জি।

পঞ্চায়েত নির্বাচনের দলের বিপুল জয় গ্রামের মানুষকে উৎসর্গ করেন মমতা ব্যানার্জি। এদিন রাজ্যে ২৯১ টি ব্লকের তিন স্তরের পঞ্চায়েত ভোটের ফল গণনা হয়। ওই ফল নিয়ে মমতা ব্যানার্জি বলেন, রাজ্যের ২০ জেলার মধ্যে ১৯ জেলাতেই তৃণমূল কংগ্রেস জয় নিশ্চিত করেছে। ২০১৩ সালে ১৮ টি জেলা ছিল। পরে সেটা ২০ টি করা হয়। গতবার মালদা, উত্তর দিনাজপুর জেলায় তৃণমূল দখল করতে পারেনি। এবার সেই জেলা গুলোতেও তৃণমূল কংগ্রেস জয় পেয়েছে।

মমতা ব্যানার্জি বলেন, নির্বাচনের ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ১০ জন তার দলের কর্মী। একজন প্রিসাইডিং অফিসার রেল দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। প্রত্যেক নিহত পরিবারকে সরকার সাহায্য করবে বলেও ঘোষণা করেন মমতা ব্যানার্জি।
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যের তিন স্তরের পঞ্চায়েতের প্রায় ৯০ শতাংশ আসনে মানুষ তৃণমূল কে জয় করিয়েছে। মানুষ তৃণমূলকে ভালবাসেন। কিন্তু বিরোধীরা যেভাবে সরকারের বিরুদ্ধে কুৎসা রটিয়েছে সেটার মানুষ জবাব দিয়েছেন।

মমতা ব্যানার্জি কিছু মিডিয়া হাউজের সমালোচনা করেন। বলেন, আমরা জানি একটা নিউজ চ্যানেল চালাতে গেলে খবর লাগে। কিন্তু এইভাবে কুৎসা অপমান করার অধিকার নেই তাদের।

তৃণমূলের বিরুদ্ধে কংগ্রেস, বিজেপি, সিপিএম এবং মাওবাদী মিলেমিশে এই পঞ্চায়েত নির্বাচনে অংশ নিয়েছে বলেও জানান মমতা ব্যানার্জি।
পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনারও জবাব দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। বলেছেন, একজন প্রধানমন্ত্রীও সীমারেখা থাকা উচিত। এ সময় তিনি কর্ণাটকের বিজেপি সরকার গঠনের প্রক্রিয়ারও সমালোচনা করেন মমতা। বলেন, যেভাবে ঘোড়া কেনাবেচা হল সেটা গণতন্ত্রের জন্য খুবই খারাপ সংকেত।


প্রসঙ্গত, আজ বৃহস্পতিবার ১৭ এপ্রিল রাজ্য জুড়ে পঞ্চায়েত ভোটের ফলাফল প্রকাশ হচ্ছে। ৩৪ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূলের প্রার্থীরা আগেই জয় পেয়েছিল। ভোটের ফলাফলের এই পর্যন্ত বেসরকারি সূত্রের খবর হচ্ছে, জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের হিংস-ভাগ আসনেই তৃণমূল প্রার্থীরা এগিয়ে রয়েছেন।

ভোটের ব্যবধানে আকাশ-পাতাল দূরত্ব হলেও বিজেপি রাজ্যে দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও বামফ্রন্ট-কংগ্রেসের অবস্থা তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। তবে নির্দল প্রার্থীরা কোথাও কোথাও বিজেপির থেকেও ভাল করেছে




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে