মহানগর সময় ডেস্ক
আপডেট
১৭-০৪-২০১৮, ০২:১৪

বাঁচানো গেলো না দুই বাসের চাপায় হাত হারানো রাজিব হোসেনকে

razib
রাজধানীতে দুই বাসের চাপায় হাত হারানো তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী রাজীব হোসেন মারা গেছেন। দুর্ঘটনার ১৫ দিনের মাথায় সোমবার দিবাগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকাকালীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
 

বিষয়টি জানিয়েছেন রাজিবের মামা জাহিদুল ইসলাম।

গত ৩ এপ্রিল বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে যাচ্ছিলেন মহাখালী থেকে সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন। বাসটি হোটেল সোনারগাঁওয়ের পাশের রাস্তায় পৌঁছালে পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস সেটিকে ওভারটেক করে। সে সময় রাজীবের ডান হাতটি বাইরের দিকে সামান্য বেরিয়েছিল। স্বজন পরিবহনের বাসটি বিআরটিসি বাসের গা ঘেঁষে পেরিয়ে যাওয়ার সময় রাজীবের হাতটি কাটা পড়ে। ঘটনার পর দ্রুত তাকে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা চেষ্টা করেও বিচ্ছিন্ন হাতটি রাজীবের শরীরে আর জোড়া লাগাতে পারেননি।

পরে রাজিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার দাশপাড়া গ্রামের প্রয়াত হেলাল উদ্দিন এবং আকলিমা বেগমের ছেলে রাজিব হোসেন। ঢাকায় যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগের একটি মেসে থাকতেন। মা-বাবা অনেক আগেই মারা গেছেন। তিন ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় রাজিব পড়াশোনা চালাচ্ছিলেন স্বজনদের সহযোগিতায়।


রাজীব হোসেনের চিকিৎসার যাবতীয় খরচ সরকার বহন করবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। সুস্থ হলে তাকে সরকারি চাকরি দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছিলেন তিনি।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে