আপডেট
১২-০২-২০১৭, ০৮:১৩

গ্রন্থমেলায় গুরুত্ব পাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের বই

book-fair
বাঙালির হৃদয়ে-মননে আর চেতনার গহীনে আজো রেখাপাত করে আছে মুক্তিযুদ্ধ। তাইতো অমর একুশে গ্রন্থমেলায় অন্যান্য বইয়ের পাশাপাশি বেশ গুরুত্ব পেয়েছে মুক্তিযুদ্ধের বই। প্রকাশকরা জানান, এসব বইয়ের প্রতি নবীনদের আগ্রহই বেশি। তবে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তৃষ্ণা মেটাতে গবেষণাধর্মী বই প্রকাশ আরো বাড়ানো উচিত বলে মনে করেন তারা।
রাজধানীর একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী মাহী। বই মেলায় বিভিন্ন স্টলে থরে থরে সাজানো অসংখ্য বইয়ের ভিড়ে মাহীর প্রথম পছন্দ মুক্তিযুদ্ধের বই। শুধু মাহী নয় অন্যান্য শিশু-কিশোরদেরও পছন্দের তালিকার শীর্ষে ৭১-এর গৌরবোজ্জ্বল মুক্তিযুদ্ধ।

বাঙালি জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন স্বাধীনতা। লক্ষ প্রাণ আর দীর্ঘ তিতিক্ষার পরই বাঙালি পেয়েছে স্বাধীনতার স্বাদ। আর এই ত্যাগ আর আবেগ ধারণ করে থাকা ইতিহাস, প্রকাশিত হয় বইয়ের পাতায় পাতায় ছাপার অক্ষরে। কিন্তু নানা বিষয়ের ভিড়ে কতটুকু গুরুত্ব পায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বই?

সময় প্রকাশনীর প্রকাশক ফরিদ আহমেদ বলেন, 'মুক্তিযুদ্ধকে অবলম্বন করে ফিকশন রচিত হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধকে অবলম্বন করে কবিতা রচিত হচ্ছে।'

তাম্রলিপির প্রকাশক এ কে এম তারিকুল ইসলাম বলেন, 'মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ব্যাপক আকারে গবেষণা হওয়া উচিৎ। আমরা আমাদের সীমিত সময়ের মধ্যে সীমিত অর্থ ব্যয় করে যতটুকু করা সম্ভব করেছি।'

বাংলা একাডেমির তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত মেলায় আসা প্রায় দেড় হাজার বইয়ের মাঝে ত্রিশটি মুক্তিযুদ্ধের বই। গত বছর যার সংখ্যা ছিল ৫৩। আগামীর বাংলাদেশ বিনির্মাণের অগ্রপথিক নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে আগ্রহের শেষ নেই।


যে চেতনার উপর ভর করে বাঙালি পেয়েছিল কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা, তা ছড়িয়ে দিতে মুক্তিযুদ্ধের বই হতে পারে অন্যতম অনুষঙ্গ।




DMCA.com Protection Status

এই বিভাগের সকল সংবাদ

Contact Address

Nasir Trade Centre, Level-9,
89, Bir Uttam CR Dutta Road, Dhaka 1205, Bangladesh
Email: somoydigitalsomoynews.tv

Find us on

  Live TV DMCA.com Protection Status
উপরে